• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন
Headline
সমাজ উন্নয়নে অংশীদারীত্ব হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ফয়সাল এখনই উঠছে না লকডাউন। বাড়ছে বিধিনিষেধ। সিদ্ধান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের। শ্রীপুরে রাস্তা পার হতে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় স্বামী-স্ত্রী নিহত কঠোর লকডাউন কতোটা ফলপ্রসূ? সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে নড়াইলে মাশরাফির ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ কি কি থাকছে সাত দিনের কঠোর লকডাউনে? লাগামহীন করোনার ভয়াবহতা! সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী। দেশের শীর্ষ পর্যটনকেন্দ্রের তালিকায় অপার সম্ভাবনার নাম সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নতুন সাতটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পূর্ণ করলো শ্রেষ্ঠ ডট কম রাণীনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একই পরিবারের তিন জনকে অপহরণ নাটোক!




করোনা প্রতিরোধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি

Reporter Name / ১৪৩ Time View
Update : রবিবার, ২২ মার্চ, ২০২০




বাপ্পী খান, ঢাকা: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি এ দেশের অভিভাবক, বঙ্গবন্ধুর যোগ্য উত্তরসূরি। আপনি অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে আজ এখানে এসেছেন। আপনি অনেক বড় বড় বিপদ মোকাবিলা করেছেন, দেখেছেন বহু বাস্তবতা, পাড়ি দিয়েছেন দীর্ঘ পথ। মহান আল্লাহর দয়ায় সবসময় নিজের বাবার মত এ দেশের মানুষের সুখে দুখে পাশে থেকেছেন, তাদেরকে রক্ষা করার দায়িত্ব নিয়েছেন। একমাত্র মহান আল্লাহর রহমত আর আপনার সরাসরি হস্তক্ষেপ ছাড়া এই মূহুর্তে আমাদের আর কোন আশা ভরসা নেই।

করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ যেভাবে বিস্তার লাভ করছে তাতে করে এটা স্পষ্টভাবে প্রতিয়মাণ বিশ্বের উন্নত দেশগুলোও এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে টিকতে পারেনি ঝরে গেছে হাজার হাজার প্রাণ। আর এখন আমাদের সোনার বাংলায় এ ভাইরাসের অবাধ বিচরণ সেখানে একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমাদের কতটুকুই বা করণীয়? আমরা সবাই দিনের পর দিন মানসিকভাবে দূর্বল হয়ে পড়ছি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মিডিয়াতে এখন প্রতিনিয়ত সবার নজর। সবাই সবাইকে সতর্ক করছি ঘরে থাকতে।

বিদেশ ফেরত কাউকে বাইরে না বের হতে, জনসমাগম না করতে, অহেতুক বাসার বাইরে না যেতে, সর্বোপরি সবাইকে বাসায় অবস্থান করতে ও সাবধানতা অবলম্বন করতে। কিন্তু, বাস্তবতা হলো সম্পূর্ণ আলাদা। আমরা কয়জন প্রকৃত নিয়ম মেনে চলছি? কয়জন একে অপরকে ঝুঁকির মুখে ফেলছিনা? মাননীয় নেত্রী দেশের এমতাবস্থায় আমরা মুখে যতই বলি, একমাত্র আপনার নির্দেশ ও কঠোর হস্তক্ষেপ ছাড়া এ পরিস্থিতি মোকাবিলা কখনোই সম্ভব নয়। দয়া করে অন্তত ১৫ টি দিনের জন্য হলেও আপনি দেশ লকডাউনের আওতায় আনুন। দেশের সকল অফিস, আদালত, ব্যাংক, মিডিয়া সব বন্ধ ঘোষণা করুন। সবাইকে দয়া করে ঘরে বসে কাজ করার নির্দেশনা দিন। পাবলিক সকল সার্ভিস বন্ধ করে দিন।

দেখবেন একমাত্র আপনার এ কঠোর হস্তক্ষেপই পারবে ১৭ কোটি বাঙালি কে আর বঙ্গবন্ধুর এ প্রিয় দেশকে রক্ষা করতে। আমাদের সকলের অভিভাবক আপনি। আর তাই আপনিই পারেন এ মরণব্যাধির হাত থেকে আমাদের সুরক্ষা করতে। দয়া করে আপনার সরকারের পক্ষ থেকে দেশে জরুরি অবস্থা জারি করুন। প্রিয় নেত্রী আমাদের দেশের বেশিরভাগই লোকই আইসোলেসন কিংবা কোয়ারেন্টাইন বোঝেনা কিন্তু তারা জরুরি অবস্থা বোঝে, তারা সেনাবাহিনীর ক্ষমতায়ন বোঝে। প্রয়োজনে আপনার সরকারী কোষাগার থেকে মাত্র কয়েকটা দিনের জন্য আপনার এ দেশের জনগণের খাবার দাবার সহ যাবতীয় নিত্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা বাসায় করে দেবার ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। আর তা না হলে মুখে শতবার বললেও বাইরে শ্রমজীবি,কর্মজীবি কিংবা চাকরিজীবীদের বের হতেই হবে। পাবলিক ট্রান্সপোর্টে যাতায়াত করতেই হবে। জনসমাগম ও হবে। আর এতে করে বঙ্গবন্ধুর এ সোনার বাংলা মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হতে হয়তো খুব বেশি সময় লাগবে না। তাই পরিশেষে আবারও বিনীতভাবে অনুরোধ করছি প্রিয় নেত্রী আপনি এ দেশকে রক্ষা করতে বরাবরের মতই নিজে পদক্ষেপ গ্রহণ করুন। পুরো জাতী, আর এ দেশবাসী আপনার দিকে তাকিয়ে, রয়েছে আপনার সঠিক দিক নির্দেশের অপেক্ষায়।

সাংবাদিক, লেখকঃ বাপ্পী খান





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category




side bottom