• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন
Headline
সমাজ উন্নয়নে অংশীদারীত্ব হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ফয়সাল এখনই উঠছে না লকডাউন। বাড়ছে বিধিনিষেধ। সিদ্ধান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের। শ্রীপুরে রাস্তা পার হতে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় স্বামী-স্ত্রী নিহত কঠোর লকডাউন কতোটা ফলপ্রসূ? সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে নড়াইলে মাশরাফির ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ কি কি থাকছে সাত দিনের কঠোর লকডাউনে? লাগামহীন করোনার ভয়াবহতা! সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী। দেশের শীর্ষ পর্যটনকেন্দ্রের তালিকায় অপার সম্ভাবনার নাম সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নতুন সাতটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পূর্ণ করলো শ্রেষ্ঠ ডট কম রাণীনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একই পরিবারের তিন জনকে অপহরণ নাটোক!




করোনা যুদ্ধে যেতে চাই মিড লেভেল ডিপ্লোমা চিকিৎসকরা

Reporter Name / ১৪৪ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল, ২০২০




সারা বিশ্ব জুড়ে আজ করোনা ভাইরাস(কোভিড-১৯)।পৃথিবীকে তছনছ করে বাংলাদেশেও ঢুকে পড়েছে।অজানা এ শক্রর সাথে যুদ্ধে মোকাবিলা করার জন্য যার যার অবস্থান থেকে শক্তহাতে মোকাবিলা করতে হবে।

কোভিড১৯ মোকাবিলায় প্রধান
হিসেবে লড়াই করছে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগ। এই বিভাগের বৃহৎ একটা অংশ হিসেবে কাজ করছে উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার বৃন্দ।লড়াকু সৈনিকের মতো অজানা শক্রর সাথে প্রতিনিয়ত লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন প্রতিটা থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,ইউনিয়নে H& FWC, প্রতিটি R.D তে অচেতন মানুষের মাঝে।

চার বছর মেয়াদি কোর্স করে ও বি.এম.ডি.সির নিবন্ধন নিয়ে প্রায় ত্রিশ হাজার উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার,বেকার DMF এবং জেলা সদর হাসপাতালে ইন্টার্নিরত D.M.F।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কাছে উপ-সহকারী কমিউনিটি ম‍েডিকেল ও বেকার DMF দের বিনীত অনুরোধ আমরা সহ বিশ্ববাসী জানে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ থেকে সামরিক সরকারের অত্যাচারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী দেশ ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিল । তখন তাদের ভিটেমাটি পর্যন্ত ফেলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নাফ নদী পাড় হয়ে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে আশ্রয় নেয়, বিশ্ব জুড়ে তখন মানুষ চমকে উঠেছিল। এই ১০ লক্ষ মানুষকে মাতৃত্বের মমতায় স্নেহ দিয়ে সাহসিকতার সাথে বাংলাদেশের ভূখন্ডে আশ্রয় দিয়ে যেভাবে লালন পালন করে তাদের জীবন বাচিয়েছেন ইহা বিশ্বের কাছে আপনার নেতৃত্বের প্রশংসা পেয়েছে। কত শান্ত হাতে এটা সমাধান করতে পেরেছেন এটা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এ ব‍্যাপারে চার বছর মেয়াদি মেডিকেল কোর্স সম্পূর্ণ কারী ডা.মো:রাশিদুল ইসলাম রাশিদ বলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে প্রায় তিন হাজর শূন্য পদ এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরে প্রায় দুই হাজার শূন্য পদে নিয়োগের অপেক্ষায় রয়েছে।প্রায় ২০ হাজার ডিপ্লোমা চিকিৎসক (মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্ট কোর্স) চার বছরের চিকিৎসা কোর্স সাফল্যের সাথে সমাপ্ত করে বসে আছে। এদেরকে করোনা ভাইরাস মোকাবিলা করার জন্য সরকারি স্বাস্থ্য স্থাপনা যেমন- থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, কমিউনিটি ক্লিনিক, বেসরকারি শিল্প কারখানা এবং সিটি কর্পোরেশন নিয়োগে দিলে করোনা যুদ্ধে তাদের জীবন উৎসর্গ করতে প্রস্তূত তারা।

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগে বিগত দশ বছর যাবৎ মেডিকেল অফিসার আর নার্স ছাড়া মিড লেভেলের চিকিৎসা সহযোগী কোন নিয়োগ নাই।মেডিকেল অফিসার নার্স যেমন প্রয়োজন তেমনি উপজেলা ও ইউনিয়ন উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ও অন্যান্য মেডিকেল টেকনোলজিস্ট অত্যন্ত গুরুত্ব কোন অংশে কম নয়।

প্রতি ছয় হাজার জন গনের স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক স্হাপন করা হলেও নেই কোন প্রশিক্ষিত জনবল।

আজকে যদি কমিউনিটি ক্লিনিকে মিড লেভেল ডিপ্লোমা চিকিৎসক ( ডিএমএফ ডিগ্রি ধারি) উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নিয়োজিত থাকত এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে হাজার হাজার পদ শূন্য না থাকত তাহলে করেনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ তথা প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে হিমশিম খেতে হতো না।

মাতৃতূল্য জননেত্রীকে দ্ক্ষ ও প্রশিক্ষিত জন বল নিয়োগের মাধ্যমে করোনা মোকাবেলা তথা এদেশের আশি ভাগ গ্রামীণ জন গনের স্বাস্থ্য নিশ্চিতের পরামর্শ দিন।

তাদের জরুরি ভিওিতে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দিলে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯), ডেঙ্গু এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য ঝুঁকির সাথে যুদ্ধ করে বাংলাদেশকে করোনা মুক্ত ও অন্যান্য আপদকালীন স্বাস্থ্য ঝুঁকি মুক্ত করে বিশ্বের একটা অনন্য নজীর স্থাপন করা সম্ভব।

সূত্র: বিবিসি নিউজ 24





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category




side bottom