• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন
Headline
সমাজ উন্নয়নে অংশীদারীত্ব হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ফয়সাল এখনই উঠছে না লকডাউন। বাড়ছে বিধিনিষেধ। সিদ্ধান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের। শ্রীপুরে রাস্তা পার হতে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় স্বামী-স্ত্রী নিহত কঠোর লকডাউন কতোটা ফলপ্রসূ? সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে নড়াইলে মাশরাফির ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ কি কি থাকছে সাত দিনের কঠোর লকডাউনে? লাগামহীন করোনার ভয়াবহতা! সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী। দেশের শীর্ষ পর্যটনকেন্দ্রের তালিকায় অপার সম্ভাবনার নাম সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নতুন সাতটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পূর্ণ করলো শ্রেষ্ঠ ডট কম রাণীনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একই পরিবারের তিন জনকে অপহরণ নাটোক!




চরফ্যাশনে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলা, শিক্ষক সমাজের নিন্দা

এআর সোহেব চৌধুরী চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি / ১৮৩ Time View
Update : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০




জাতীয় দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকার নিজস্ব সংবাদদাতা ও দৈনিক সময়ের চিত্র পত্রিকার সম্পাদক এআরএম মামুন এর উপর শিক্ষক কর্তৃক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজ ও বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দসহ সকল শিক্ষক ও শিক্ষিকা বৃন্দ।

সোমবার (০৭সেপ্টেম্ব) সংগঠন গুলোর সভাপতি ও সম্পাদকের স্বাক্ষরিত পত্রে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পত্রে তারা সাংবাদিকের উপর হামলাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান।

শিক্ষক নেতৃবৃন্দ বলেন, সাংবাদিকরা সমাজ ও রাস্ট্রের দর্পন। যে কোন ঘটনাকে জনগনের কাছে পৌছে দেন তারা। সংবাদ প্রকাশের জের ধরে সাংবাদিকের উপর হামলা একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা। প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে, যা উদ্বেগজনক। চরফ্যাশনে সাংবাদিক মামুনের ওপর হামলা ঘটনা একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা।

জানা যায়, সংবাদ প্রকাশের জের ধরে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় চরফ্যাশন সদর কালিবাড়ী সড়কে সাংবাদিক মামুনের উপর একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা করে। এই ঘটনায় এআরএম মামুন বাদী হয়ে চরফ্যাশন সদর থানায় এজহার দাখিল করেন।

এদিকে থানায় দায়েরকৃত ওই এজাহারটি মামলা হিসেবে না নেয়ায় এবং অভিযুক্তদের আটক না করায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে সাংবাদিক মহলে নিন্দার ঝড় উঠেছে।

এঘটনায় তিব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে অনতিবিলম্বে এজহারটি আমলে নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক গোলাম হোসেন সেন্টু, জাকির হোসেন এবং মাহাবুবকে গ্রেফাতারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ভোলা জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন চরফ্যাশন প্রেসক্লাব ও বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন, চরফ্যাশন উপজেলা শাখার কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন গনমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিবৃন্দ।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, থানা পুলিশ অভিযোগটি আমলে না নিলে এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতার না করলে পরবর্তীতে এঘটনার প্রতিবাদে সাংবাদিকরা মানববন্ধনসহ কঠোর কর্মসূচী গ্রহনে বাধ্য হবে।

আহত সাংবাদিক মামুন জানান, সম্প্রতি দক্ষিণ চর মঙ্গল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঘূর্ণীঝড় আম্পানে বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্ত না হলেও ওই বিদ্যালয়ে বরাদ্ধ নেয়া হয়। বরাদ্ধকৃত ওই টাকা ভুয়া বিল ভাউচার দিয়ে উত্তোলন করে প্রধান শিক্ষক গোলাম হোসেন সেন্টু আত্মসাত করেন। এবং বাবুর হাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারীর ঘটনার সংবাদ প্রকাশ করা হয়। ওই সংবাদ প্রকাশের জের ধরে গত শুক্রবার রাতে চরফ্যাশন সদরের কালী বাড়ি রোডে তার উপর এ হামলা করেন অভিযুক্তরা।

ঘটনার পরদিন শনিবার তিনি অভিযুক্ত তিন শিক্ষককে আসামী করে চরফ্যাশন থানায় এজাহার দাখিল করেন।
চরফ্যাশন থানার ওসি মো.মনির হোসেন মিয়া সাংবাদিক মামুনের দায়েরকৃত অভিযোগটি মামলা হিসেবে না নেওয়া এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতার না করার বিষয়ে সদুত্তর দিতে পরেন নি। তিনি এব্যাপারে সাংবাদিকদের জেলা পুলিশ সুপারের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category




side bottom