• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন
Headline
সমাজ উন্নয়নে অংশীদারীত্ব হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ফয়সাল এখনই উঠছে না লকডাউন। বাড়ছে বিধিনিষেধ। সিদ্ধান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের। শ্রীপুরে রাস্তা পার হতে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় স্বামী-স্ত্রী নিহত কঠোর লকডাউন কতোটা ফলপ্রসূ? সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে নড়াইলে মাশরাফির ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ কি কি থাকছে সাত দিনের কঠোর লকডাউনে? লাগামহীন করোনার ভয়াবহতা! সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী। দেশের শীর্ষ পর্যটনকেন্দ্রের তালিকায় অপার সম্ভাবনার নাম সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নতুন সাতটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পূর্ণ করলো শ্রেষ্ঠ ডট কম রাণীনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একই পরিবারের তিন জনকে অপহরণ নাটোক!




নড়াইলে করোনা মোকাবেলায় পুলিশ নিরালস ভাবে কাজ করছে

Reporter Name / ১২৭ Time View
Update : রবিবার, ১২ এপ্রিল, ২০২০




নড়াইলে করোনা মোকাবেলায় পুলিশ নিরালস ভাবে কাজ করছে। নিজের জীবনকে বাজি রেখে পরিবারের মায়া ত্যাগ করে, পথের মানুষকে আপন ঘরে রাখতে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। মানুষের এই ক্লান্তি লগ্নে যখন প্রতিটি মানুষ ঘরে বসে নিজের ও তার পরিবারের সুরক্ষার কথা ভাবছে ঠিক তখনই পুলিশ রাস্তায় থেকে মানবতার সেবা দিয়ে যাচ্ছে। অনেক অনাহারী মুখে খাবার পৌছে দেবার জন্য গ্রামীন মেঠো পথ দিয়ে গিয়ে বাড়িতে খাবার পৌছে দিচ্ছে। শুধু তাই না , নড়াইলের সুযোগ্য পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন পিপি এম ( বার) নেতৃত্বে, নেওয়া হয়েছে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জেলা জুড়ে জনসচেতনতা সহ বিভিন্ন পদক্ষেপ। দিনে রাতে ২৪ ঘন্টায় নড়াইল বাসীর কল্যাণে কাজ করে চলেছে পুলিশ সদস্যরা।

বর্তমানে তাদের দৈনন্দিন কাজের ৮০ ভাগই কাজ করছে করোনা নিয়ে। প্রবাস থেকে দেশে ফিরে আসা প্রবাসীর মধ্যে খোঁজ নিয়ে তাদের বাড়িতে গিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করছেন। এ সময় তাদের শারিরীক অবস্থা জানতে চাওয়া হচ্ছে। হোম কোয়ারেন্টানে থাকার নিয়ম-কানুন বুঝিয়ে বলছেন। প্রবাসীদের বাড়ির পাশের ফোন নম্বর সংগ্রহ করছে পুলিশ। প্রবাসীদের ব্যাপারে প্রতিবেশীদের কাছ থেকে কোয়ারেন্টাইনে আছে কিনা তাও খোঁজ নিচ্ছে। ইতোমধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত নিয়মকানুন সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এ ছাড়াও তাদের মধ্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করেছেন। এখন পর্যন্ত সেনাবাহিনী ও র‌্যাবের সাথে সম্মেলিত ভাবে করোনা রোধে কাজ করছে। পুলিশের পক্ষ থেকে এরমধেই বিনামূল্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এ সকল প্যাকেট থানার ওসি ও ফাঁড়ির ইনচার্জের মাধ্যমে ঐ সকল এলাকার হতদরিদ্র মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে বাজারে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ঠেকাতে বাজার মনিটরিংয়ে সহযোগিতা করছেন । একই সাথে জেলা আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখার নিয়মিত দায়িত্বও পালন করছেন। এক সপ্তাহ পরে খাদ্যদ্রব্যের অভাব দেখা দিলে চুরি ডাকাতির আশঙ্কা রয়েছে সে বিষয়ে পুলিশের পূর্ব প্রস্তুতিও রয়েছে।করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি রোধে সামাজিক দূরত্ব বজায়ের লক্ষ্যে ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানসহ জনবহুল জায়গা গুলোতে ৩ফিট পরপর রং দিয়ে রেখা অঙ্কন করে দেওয়া হচ্ছে। জনসাধারণকে কোয়ারিন্টাইন নিশ্চিত কারনের বিষয়টি বোঝানোর পাশাপাশি চালানো হচ্ছে করোনা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা। লক্ষ রাখতে হবে আমরা যেন কোনভাবেই আক্রান্ত না হই, সেজন্য প্রত্যেককে বিশেষভাবে সচেতন থাকতে হবে। পাশাপাশি নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে দেওয়া হচ্ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী। এমনকি রাস্তা-ঘাট, দোকান-পাটসহ জনবসতিপূর্ণ এলাকা গুলোতে স্প্রে ম্যাশিনের মাধ্যমে জীবাণুনাশক ওষুধ স্প্রে করা হচ্ছে।

একই সাথে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি সকল নির্দেশনা মেনে চলারও আহ্বান জানিয়ে হ্যান্ড মাইকে প্রচার করছন। এ বিষয়ে মুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগেেে সভাপতি বিপুল সিকদার বলেন, করোনা মোকাবেলায় নড়াইলের পুলিশ যে ভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছে সেটি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। এ বিষয়ে নড়াইল সুযোগ্য পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন পিপিএম জানান, করোনা ভাইরাসের এই মহামারী দুর্যোগে অন্য কোন সেবাদানকারী সংস্থার চাইতে পুলিশ কোন ভাবেই পিছিয়ে নেই। এমনিতেই দেশবাসীর বিপদে আপদে পুলিশ সার্বক্ষণিক নিয়োজিত। বর্তমান পরিস্থিতি মানুষের সেবাতেও পিছিয়ে থাকবেনা। আমরা সেবার মানসিকতা নিয়ে মাঠে নেমেছি। করোনা প্রতিরোধে আমরা সার্বক্ষণিক মাঠে থাকবো। রাষ্ট্রীয় সকল নির্দেশনা মেনে সর্বোপরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক দিক নির্দেশনায় আমরা শেষ পর্যান্ত কাজ করে যাবো। এতে জীবন বিপন্ন হলেও পুলিশ সদস্যরা পিছপা হবে না।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category




side bottom