শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন




বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের আস্থার প্রতীক তানিয়া হক শোভা

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৭২ Time View

বাপ্পী খান, চীফ রিপোর্টারঃ তানিয়া হক শোভা শুধু একটি নামই নয় তিনি বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের একজন আস্থার প্রতীক ও স্বচ্ছ রাজনীতির দৃষ্টান্ত। দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক হিসেবে।

এছাড়াও গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুরের কৃতি সন্তান তানিয়া হক শোভা গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের নির্বাচিত প্যানেল চেয়ারম্যান এবং মুকসুদপুর উপজেলা যুব মহিলা লীগের প্রেসিডেন্ট হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

আওয়ামী পরিবারে জন্ম নেয়া তানিয়া হক শোভার বাবা আওলাদুল হক মিয়া (মরহুম) একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং মুকসুদপুর আওয়ামীলীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তার মাতা মনোয়ারা চৌধুরী তেজগাও মহিলা লীগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট। তার চাচা আবুল খায়ের (মরহুম) স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে গোপালগঞ্জ-১ এর এন.এম.এ ছিলেন।
তানিয়া হক শোভার হাজবেন্ড শহিদুল হক চৌধুরী রাসেল বর্তমান যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন এবং এর আগে তিনি যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তানিয়া হক শোভা বলেন, আমার জীবনে প্রথম গর্বের বিষয় আমি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর জন্ম নেয়া জেলা গোপালগঞ্জের মাটিতেই জন্মগ্রহণ করেছি এবং বড় হয়েছি। ছোটবেলা থেকেই বাবাকে দেখে শিখেছি বঙ্গবন্ধুর নীতি ও আদর্শের প্রতি তার সম্মান এবং শ্রদ্ধাবোধ। আমার বাবা বঙ্গবন্ধুর একজন আদর্শ সৈনিক ছিলেন এবং তার একমাত্র মেয়ে হিসেবে আমিও বঙ্গবন্ধুর নীতি আর আদর্শকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমাদের যুব মহিলা লীগের সভাপতি, প্রিয় নাজমা আপার নেতৃত্বে সর্বদা রাজপথে ছিলাম আছি এবং থাকবো ইনশাআল্লাহ।

তিনি আরো বলেন,
জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতির জনকের যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে দেশের জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কাজ করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত বঙ্গবন্ধুর প্রতিটি স্বপ্ন পূরণে। আমরা সেই জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত সৈনিক হয়ে যুব মহিলা লীগের যোগ্য সভাপতি নাজমা আপার নেতৃত্বে দলের দুঃসময়েও যেমন রাজপথে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে অবস্থান করেছি আজও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে জননেত্রী শেখ হাসিনার কর্মী হয়েই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী এবং সকল ষড়যন্ত্র ও নীল নকশা প্রণয়নকারীদের রুখে দিতে আজও রাজপথে আছি।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের রাজনীতি আমার রক্তে মিশে আছে। আমি সারাজীবন জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন কর্মী হয়েই সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই।
তিনি বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা সর্বদা দলের জন্য ও দেশের জন্য নিবেদিত কর্মীদের মূল্যায়ন করে থাকেন। তিনিই সবথেকে ভাল জানেন কখন কি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। আমাদের যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আপার নেতৃত্বে আমরা সবাই সর্বদা ঐক্যবদ্ধ এবং আগামীতে ও নেত্রী যাকে যোগ্য মনে করবেন, যাকেই দায়িত্ব দিবেন অতীতের মত, সবসময়ের মত সেটাই মাথা পেতে নিব। জননেত্রী শেখ হাসিনাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একমাত্র অভিভাবক আর তাই তার সকল সিদ্ধান্ত কে সম্মান জানিয়ে মেনে নিতে এবং তার ডাকে যে কোন সময় যে কোন পরিস্থিতি মোকাবিলায় সর্বদা প্রস্তুত আছি ইনশাআল্লাহ।




More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 Atozithost
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin