• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন
Headline
সমাজ উন্নয়নে অংশীদারীত্ব হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতা ফয়সাল এখনই উঠছে না লকডাউন। বাড়ছে বিধিনিষেধ। সিদ্ধান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের। শ্রীপুরে রাস্তা পার হতে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় স্বামী-স্ত্রী নিহত কঠোর লকডাউন কতোটা ফলপ্রসূ? সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে নড়াইলে মাশরাফির ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ কি কি থাকছে সাত দিনের কঠোর লকডাউনে? লাগামহীন করোনার ভয়াবহতা! সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী। দেশের শীর্ষ পর্যটনকেন্দ্রের তালিকায় অপার সম্ভাবনার নাম সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নতুন সাতটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পূর্ণ করলো শ্রেষ্ঠ ডট কম রাণীনগরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একই পরিবারের তিন জনকে অপহরণ নাটোক!




ময়মনসিংহে ফুটপাত দখলমুক্তকরণ অভিযান, নির্দিষ্ট জয়গার ব্যবস্থা না করে দিলে পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকা কঠিন

Reporter Name / ১৩২ Time View
Update : মঙ্গলবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯




ময়মনসিংহ নগরীর অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার ফুটপাত দখল করে আছে ছোট-বড় ব্যবসায়ীরা। গাঙ্গিনারপাড়সহ অনেক পয়েন্টে দীর্ঘদিন যাবৎ হকাররা রাস্তা দখল করে বিভিন্ন পণ্যের দোকান সাজিয়ে বসে থাকে। এতে করে ফুটপাতের রাস্তায় ভিড় জমে যায়। দিন লেগে যায় চোর, ছিনতাই, পকেটমার, হাইজ্যাকার, মলম পার্টি সহ বাটপার লোকজনের। আর মার্কেটে বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা লোকজনের ছিনতাই, পকেটমার সহ নানা অসুবিধার মুখে পরতে ।
অন্যদিকে হকাররা বলছে, তাদেরকে নির্দিষ্ট জয়গার ব্যবস্থা না করে দিলে পরিবার পরিজন নিয়ে বেঁচে থাকা কঠিন। আমরা যা সারাদিনে বিক্রি করি তা থেকেই দোকানের মালামালসহ বাব-মা, স্ত্রী-সন্তানের ভরণপোষণ জোগায়। একটানা দুদিন ব্যবসা না করলেই না খেয়ে থাকতে হয়। এসকল বিষয় মাথায় রেখে জেলা প্রশাসন এবং সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক প্রায়ই অভিযান পরিচালিত হচ্ছে বলে জানা যায়। জনদুর্ভোগ লাঘবে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে চরপাড়া মোড় থেকে ভাটিকাশর মোড় পর্যন্ত এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।
সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রাজীব-উল-আহসান আজ ৩ ডিসেম্বর রোজ মঙ্গলবার এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে ফুটপাতে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয় এবং সংশ্লিষ্ট আইনে জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় সিটি কর্পোরেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, কর্মচারী ও আইনশৃংখলা রক্ষাবাহিনির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আরো জানা যায় এ অভিযান চলমান থাকবে।
এ বিষয়ে শহরের অনেকের সাথে কথা বললে উনারা জানান অভিযান পরিচালনা করে জনগণের অনেক সুবিধা হয়েচ্ছে। এতে করে কমছে ভিড়, রক্ষাপাবে নানা ছিনতাইকারীসহ বাটপার লোকজনের হাত থেকে মার্কেটে বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা লোকজন। এতে আমরা ধন্যবাদ জানায় ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনেকে। এমন অভিযান সবসময় চলোক । সেই সাথে অনুরোধ করছি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র একরামুল হক টিটু সহ ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান স্যার, জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান স্যার মহোদয়কে যেন ওদের একটি নির্দিষ্ট জয়গার ব্যবস্থা করে দেয় না হলে যে ওরা না খেয়ে মরে যাবে বা ভন্ড সন্ত্রাস হয়ে যেতে পারে কিছু সুবিধাভোগী লোকের সাথে মিসে।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category




side bottom