শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৩:০০ অপরাহ্ন
Title :
রাণীনগরে নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়ন বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রাণীনগরে নিখোঁজের চার দিনের মাথায় পুকুর থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার রাণীনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পেলেন “নৌকা” সম্পাদক নিলেন “মটরসাইকেল”প্রতিক নড়াইলে মাশরাফির পক্ষ থেকে আশরাফুজ্জামান মুকুলের নেতৃত্বে বিশাল শোডাউন রিয়েলিটি শো “বাংলার গায়েন” ১০০ জন প্রতিযোগীতার মধ্যে অবস্থান করে নিয়েছেন নওগাঁর মেয়ে নূসরাত মাহী। রাণীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের ধুম শুরু তরুন যুবনেতা আলভির শুভেচ্ছা ব্যানারে রঙ নিক্ষেপের অভিযোগ রাণীনগরে ৫ বছরের শিশুকে যৌন নিপীরনের অভিযোগে থানায় মামলা পারিবারিক কবরস্থান জিয়ারত করলেন সদ্য নির্বাচিত এমপি হেলাল নওগাঁ-৬,আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল নির্বাচিত




শ্রীপুরে অবৈধভাবে জমি দখল ও উচ্ছেদ করার পাঁয়তারা!

Reporter Name
  • আপডেট টাইম: রবিবার, ৩ মে, ২০২০

গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া পূর্ব খন্ড গ্রামের (আনসার রোড) আমতলী এলাকা সংলগ্ন অন্যের সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল, উচ্ছেদ ও পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী ওই এলাকার অসহায় দরিদ্র একাধিক ব্যক্তি। তারা প্রভাবশালীদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন যাবৎ উচ্ছেদ ও অবৈধভাবে জমি দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে গোটা বিশ্ব লকডাউন। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বাংলাদেশ লকডাউন রয়েছে। এরকম দুর্যোগ মুহূর্তেও থেমে নেই ওই প্রভাবশালীরা। অন্যায় ভাবে অন্যের জমি দখল করার উদ্দেশ্যে তাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে ভুক্তভোগীরা সংশ্লিষ্ট শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, শ্রীপুর থানা, গাজীপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়সহ গাজীপুর জেলা আদালতে একাধিক অভিযোগ করেছে। কয়েকটি মামলাও হয়েছে জমি সংক্রান্ত বিষয়ের উপর। কিন্তু জমি দখল করতে বেপরোয়া ওই প্রভাবশালীরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ১৯৬১ সালের মুসলিম আইন অনুযায়ী আর,এস ১১০৭ খতিয়ানে আবুল হাসেম গং, রমজান আলী গং ও মমতাজ উদ্দিন এদের হিস্যা অনুযায়ী মোট জমির পরিমাণ ৪৩১ শতাংশ। এদের মধ্যে আবুল হাশেমের জমির পরিমাণ এক আনা ৯গন্ডা ২কড়া, মফিজ উদ্দিনের এক আনা ৯গন্ডা ২কড়া, কাজিম উদ্দিনের এক আনা ৯গন্ডা ২কড়া, ছমর উদ্দিনের এক আনা ৯গন্ডা ২কড়া। একেকজনের সমহারে প্রাপ্ত জমির পরিমাণ ৩৯.৭৩ শতাংশ। আবুল হাশেম গং সহ (৫ ভাই) একত্রে ১৯৮.৬৫ শতাংশের মালিক। রমজান আলী গং এর হিস্যা অনুযায়ী রমজান আলী ছয় আনা, মমতাজউদ্দীন ১৫ গন্ডা ও ইদ্রিস আলী এক আনা ১৭গন্ডা ২ কড়া। উক্ত হিস্যা অনুযায়ী রমজান আলী প্রাপ্ত জমি ১৬১.৬২৫ শতাংশ, মমতাজউদ্দীন ২০.২০ শতাংশ ও ইদ্রিস আলী ৫০.৫০ শতাংশ। অর্থাৎ রমজান আলী গং একত্রে প্রাপ্ত জমি ২৩২.৩৩ শতাংশ।

অপরদিকে, আর,এস ১১৬৩ নং খতিয়ানে আবুল হাশেম গং ও রমজান আলী গংদের হিস্যা অনুযায়ী মোট জমির পরিমাণ ২২০শতাংশ। আবুল হাসেম গং সহ (৫ ভাই) সমাহারে ৫.৬৮ শতাংশের মালিক। মোট ২৮.৪২ শতাংশ। রমজান আলী গং এর হিস্যা অনুযায়ী একেকজন ১৭.৩৬ শতাংশের মালিক। রমজান আলী গং সহ মোট তিনজন ৫২.৮ শতাংশ জমির মালিক।

অন্যদের ওই জমি নিয়ে কোনো দাবি কিংবা আপত্তি না থাকলেও মৃত ইদ্রিস আলীর সন্তান ফজলুল হক, আজিজুল হক, জাকিরুল, হামিদুল ও নূরু মিয়া বেদখল করার পায়তারা চালাচ্ছে দীর্ঘদিন যাবত। অথচ তাদের সম্পত্তির মধ্যে তারা শান্তিপূর্ণভাবে বসবাসসহ স্থাপনা করে রেখেছে।

আবুল হাশেম এর সন্তান আসাদুজ্জামান উমেদ আলী বলেন, অন্যায় ভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে ওই সম্পত্তি বেদখল করার পায়তারা চালাচ্ছে দীর্ঘদিন যাবত। এই ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে একাধিক অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, সে জন্য কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটায়নি। তবুও আমার নামে মিথ্যা মামলা ও হুমকি দিয়ে হয়রানি করতেছে।

এবিষয়ে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট সালেহা পারভীন আবুল হাসেম গং, রমজান আলী গং ও মমতাজ উদ্দিন এদের হিস্যা অনুযায়ী প্রাপ্ত সম্পত্তির ফারায়েজ করে দিয়ে আইনগত মতামত প্রকাশ করেছেন।







এ জাতীয় আরো খবর..




FOLLOW US

ই-মেইল: ‍atozsangbad@gmail.com
ফেইসবুক
ইউটিউব

পুরাতন খবর

sidebar middole




side bottom




© All rights reserved © atozsangbad.com
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin
x